Bangla

ঘরে বসেই ব্রণ সমস্যার সমাধান : Home Remedies for Acne : My Skin Health & Beauty Tips in Bangla

‘মুখ ব্রণে ভর্তি! যেটাকে আমরা Acne / Skin Problem ও বলে থাকি’

তাহলে আজকেই জেনে নিন কীভাবে ঘরে বসেই খুব সহজে নিজের ডাক্তারি নিজেই করে পেতে পারেন উজ্জল ও মসৃণ ত্বক। Home remedies for acne free healthy fresh skin at home: My Skin Health & Beauty Tips in Bangla

এই ব্রণ কেন হয়?

মুখে গোটা বের হওয়া বা ব্রণ হওয়াটা খুবই সাধারণ একটি ব্যাপার, যদিও এটি একটি সমস্যা হিসাবেই আমরা দেখে থাকি কারণ এটির কারণে অনেকেরই যৌবন অতিষ্ঠ্য হয়ে ওঠে। বয়ঃসন্ধির সময় তো আছেই এমনকি অন্য যে কোন বয়সেই এটি হতে পারে। মূল ব্যাপার হল; লোমকূপের তলায় তৈল নিঃস্বরনের গ্রন্থি এবং মৃত কোষের জুগলবন্ধিতেই এই সমস্যা হয়।
মুখে গোটা বা ব্রণ বের হলে অনেকেই দৌড়ে যেতে চান চিকিৎসকের কাছে, আবার অনেকেই আছেন যারা দামী দামী ক্রিম বা ঔষধ ব্যাবহার করতে আরম্ভ করে দেন। তবে উপরে যেহেতু বলে দিয়েছি এটির মূল কারণ, তাহলে এখন থেকে নিশ্চয়ই আর দৌড়াদৌড়ী করবেন না।
এখন থেকে ঘরে বসেই এটির কিভাবে সমাধান করতে পারবেন সেটার বিস্তারিত নির্দেশনা নিন্মে দেয়া হল। আশাকরি ঘরে বসেই হাতের নাগালে থাকা উপাদান দিয়েই নিজের ডাক্তারি নিজেই করতে পারবেন এবং ত্বক রাখতে পারবেন ফ্রেশ এবং মসৃণ।

Home remedies for acne free healthy fresh skin at home My Skin Health & Beauty Tips in Bangla০১. শসা কেই-বা না চিনেন এবং কোথাই বা না পাওয়া যায়। এটি শুধু খাদ্য হিসাবেই নয় বরং এটির রয়েছে নানান গুণ। আসুন জেনে নেই কীভাবে এটিকে ত্বকের ঔষধ হিসাবে ব্যাবহার করা যায়। খুব সহজেই এটিকে থেতলিয়ে মুখে লাগাতে পারেন, এতে ত্বক হবে ঠান্ডা এবং মসৃণ। মুখে লাগানোর ১৫-২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
এছাড়াও অনেভাবে ইউজ করতে পারেন। এটিকে গোল গোল করে কেটে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন, তারপর সেই পানি খেয়ে নিন এবং মুখ ধুয়ে ফেলুন। তবে সরাসরি বেটে লাগানোটাই বেশী উপকৃত।

০২. টুথপেস্ট শুধু দাঁতের জন্যই নয়, বরং ত্বকের জন্যেও বেশ উপকারী। এটাতে রয়েছে মুখের অতিরিক্ত তৈল টেনে নেয়ার ক্ষমতা যেটা ব্রণের অন্যতম কারণ। ব্রণের জায়গায় খুব অল্প পরিমানে লাগিয়ে রাখতে পারেন, তবে কোন প্রবলেম মনে না হলে পরবর্তীতে পরিমান বাড়াতে পারেন।

০৩. গ্রিন টি-ও কিন্তু ব্রণের বিরুদ্ধে বেশ কার্যকরী। সাধারণ ভাবেই গরম পানি দিয়ে গ্রিন টি তৈরি করুন (চিনি ছাড়া), তারপর সেটিকে ঠাণ্ডা করে নিয়ে ব্রণের জায়গায় লাগান। এক্ষেত্রে তুলো বা নরম কাপড় ব্যাবহার করতে পারেন। আর যদি টি ব্যাগ ইউজ করেন তাহলে টি ব্যাগ টি ঠাণ্ডা হলে সরাসরি ব্রণের জায়গায় লাগিয়ে রাখতে পারেন। ১৫-২০ মিনিট পর ফ্রেশ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

০৪. আমরা ‘অ্যাসপিরিন’ কে শুধু খাওয়ার ঔষধ হিসাবেই জানি, তবে এটাও ব্রণ সারাতে বেশ ভূমিকা পালন করে। এটাতে আছে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড যেটা দ্রুত ব্রণ শুকিয়ে দিতে সাহায্য করে। প্রথমে ৩-৪ টা ট্যাবলেট ভালভাব এ গুড়িয়ে নিন, তারপর সেগুলোতে অল্প পানি দিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন, এবার রাতে বিছানায় যাওয়ার আগে ব্রণে লাগান আর সকালে উঠে ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন।
আর আপনার ত্বক যদি স্পর্শকাতর হয় তাহলে খুব অল্প সময় রেখেই ধুয়ে ফেলুন। আশাকরি ভালই ফল পাবেন।

০৫. এবারে রসুনের পালা। রসুন হচ্ছে ব্রণের শত্রু। এটির ব্যাবহার যেমন সহজ ঠিক কার্যকারিতাও খুব মারাত্বক। ১-২ কোয়া রসুন ২-৩ টুকরা করে কেটে নিন, তারপর ব্রণের জায়গায় রস লাগিয়ে ৫-৬ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। রাতে বিছানায় যাওয়ার আগেও লাগাতে পারেন দেখবেন কয়েকদিন পর ত্বকে বেশ পরিবর্তন আসছে। নিজেই নিজের ত্বকের উন্নতি টের পাবেন।

Home remedies for acne free healthy fresh skin at home My Skin Health & Beauty Tips in Bangla

০৬. এবার মিস্টার লেবু’র পালা। লেবুন রস ব্রণের জায়গায় লাগিয়ে নিতে পারেন। তবে এটার সঙ্গে দারুচিনি গুড়া করে পেস্ট তৈরি করে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে আক্রান্ত জায়গায় লাগিয়ে নিন, পরদিন সকালে হালকা গরম পানি দিয়ে ভালভাবে ধুয়ে নিন।

তবে যে যাই বলুক না কেন, পর্যাপ্ত পানি না খাওয়া এবং অনিয়মিত ঘুম হতে পারে আপনার স্কিন সমস্যার মূল কারণ। এ ব্যাপারটিও মাথায় রেখে চলা উচিৎ।

>> উপরিউক্ত যেকোন একটি সঠিকভাবে মন দিয়ে পালন করলে নিজের ডাক্তারির ফল নিজেই টের পাবেন আশাকরি। ভাল লাগলে প্রিয়জনদের সাথে অবশ্যই শেয়ার করবেন যাতে তারাও উপকৃত হয়। আর এই ব্লগে আসার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি সেই সাথে আরও স্বাস্থ্য রিলেটেড টিপস পেতে নিয়মিত ভিজিট করার আহ্বান জানাচ্ছি। সবাই ভাল থাকবে সুস্থ্য থাকবেন সেই প্রত্যাশায় আজকের মত এখানেই ইতি টানছি।

One thought on “ঘরে বসেই ব্রণ সমস্যার সমাধান : Home Remedies for Acne : My Skin Health & Beauty Tips in Bangla”

  1. Kostokor Balok says:

    লেখাটি ভাল লাগল, অনেক কিছুই জানতে পারলাম
    thanks for sharing such informative post.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *